এলেঙ্গা ও কালিহাতী দুটি প্রেসক্লাব এককরে কমিটি গঠন

এলেঙ্গা ও কালিহাতী দুটি প্রেসক্লাব এককরে কমিটি গঠন

এলেঙ্গা ও কালিহাতী দুটি প্রেসক্লাব এককরে কমিটি গঠন

লোকাল নিউজ ডেস্ক : টাঙ্গাইলের কালিহাতী প্রেসক্লাবের কমিটি গঠন করা হয়েছে। শনিবার (১৯ অক্টোবর) সন্ধ্যায় সকলের সম্মতিক্রমে টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবে যাচাই-বাছাই শেষে শাহ আলমকে সভাপতি ও দাস পবিত্রকে সাধারণ সম্পাদক করে ১৫ সদস্য বিশিষ্ট এ কমিটি ঘোষণা করেন টাঙ্গাইল প্রেসক্লাব।

এলেঙ্গা ও কালিহাতী দুটি  প্রেসক্লাব এককরে কমিটি গঠন
এলেঙ্গা ও কালিহাতী দুটি প্রেসক্লাব এককরে কমিটি গঠন

কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলো- সহ-সভাপতি মীর আনোয়ার (সমকাল), তারেক আহমেদ (যুগান্তর); যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক রাইসুল ইসলাম লিটন (যায়যায়দিন), সোহেল রানা (আলোকিত সকাল); কোষাধ্যক্ষ মেহেদী হাসান চৌধুরী (কালবেলা), সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক আনিসুর রহমান শেলী (গণমুক্তি), ক্রীড়া সম্পাদক সুমন চন্দ্র ঘোষ (জাগরণ), দপ্তর সম্পাদক মনির হোসেন (আজকালের খবর)। কার্যকরী সদস্য রশীদ আহমেদ আব্বাসী (নিউজ ফেয়ার), কামরুল হাসান (পূর্বাকাশ), রঞ্জন কৃষ্ণ পন্ডিত (আলোকিত বাংলাদেশ), কামরুল হাসান মিয়া (অবজারভার), আব্দুস সাত্তার (ভোরের পাতা)।

উল্লেখ্য, এলেঙ্গা ও কালিহাতীতে দুটি প্রেসক্লাব ছিল। প্রত্যেক উপজেলায় একটি করে প্রেসক্লাব থাকার নির্দেশ আসার পর এরই ধারাবাহিকতায় কালিহাতীতেও একটি মাত্র প্রেসক্লাব গড়ার লক্ষে টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের সভাপতি এডভোকেট জাফর আহম্মেদের বিশেষ প্রচেষ্টায় এলেঙ্গা প্রেসক্লাবের সভাপতি দাস পবিত্র এলেঙ্গা প্রেসক্লাবের বিলুপ্তি ঘোষণা করে কালিহাতী প্রেসক্লাবের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করেন। পরে টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ১৫ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করে দেন। এছাড়া টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের যাচাই-বাছাই শেষে প্রেসক্লাবের মোট ৪৩ জন সাধারণ সদস্য মনোনিত হয়েছেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের সভাপতি এডভোকেট জাফর আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক ও কমিটির আহবায়ক কাজী জাকেরুল মওলা, কার্যকরী সদস্য ও আহবায়ক কমিটির সদস্য সচিব ইফতেখারুল অনুপম, যুগ্ম-সম্পাদক আহবায়ক কমিটির সদস্য আব্দুর রহিম, কালিহাতী প্রেসক্লাবের উপদেষ্টা মীর্জা শাকিল, জুবায়েদ মল্লিক বুলবুল, অরণ্য ইমতিয়াজ।

পরিচিতি Ibrahim Bhuiyan

এটাও চেক করতে পারেন

জলদস্যুর হাতে জিম্মি সাব্বিরের বাড়িতে কান্না আর আহাজারি

নিজস্ব প্রতিবেদক : ছেলে সাব্বিরের জিম্মিদশার খবর শুনে বাবা হারুন অর রশিদ ও মা সালেহা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *