কালিহাতী পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থী আলী আকবর জব্বারের গাড়ি ভাংচুর

আঃ রশিদ তালুকদার:চতুর্থ ধাপে অনুষ্ঠেয় টাঙ্গাইলের কালিহাতী পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থী আলী আকবর জব্বারের গাড়ি ভাংচুর ও তাকে প্রাণ নাশের হুমকি দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করা হয়েছে।

সোমবার(১ ফেব্রæয়ারি) দুপুরে পৌরসভার বনবিভাগের কাছে বয়লার মিলে ধানের শীষের নির্বাচনী ক্যাম্পে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি প্রার্থী ও বর্তমান মেয়র আলী আকবর ওই অভিযোগ করেন।লিখিত বক্তব্যে তিনি জানান, পৌরসভার কামার্থী এলাকায় গণসংযোগ করে রোববার(৩১ জানুয়ারি) রাত ৯টার দিকে কালিহাতী বাসস্ট্যান্ডে পৌঁছলে নৌকার প্রার্থী নুরুন্নবী সরকার তার গাড়ির সামনে নিজের গাড়ি দিয়ে ব্যারিকেড সৃষ্টি করেন। এ সময় তার সাথে থাকা বহিরাগত ২০-২৫জন ব্যক্তি লাঠি-সোটা নিয়ে হামলা চালিয়ে আলী আকবরের দুইটি গাড়ি ভাংচুর করে। এ সময় গাড়িতে থাকা বিএনপি প্রার্থী আলী আকবর জব্বার কালিহাতী উপজেলা বিএনপির আহŸায়ক শুকুর মাহমুদ গাড়ির ভেঙে পড়া কাঁচের আঘাতে সামান্য আহত হন। এ বিষয়ে কালিহাতী পৌরসভা নির্বাচনে রিটার্নিং অফিসার ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।বর্তমান মেয়র ও উপজেলা বিএনপির যুগ্ম-আহŸায়ক আলী আকবর জব্বার জানান, আওয়ামীলীগের প্রার্থী নুরুন্নবী সরকার বহিরাগত লোকদের নৌকার পক্ষে প্রচারণার জন্য ব্যবহার করছেন। তাদেরকে দিয়ে ধানের শীষের অন্তত পাঁচটি মাইক ইতোমধ্যে ভাংচুর করা হয়েছে। পৌরসভার বিভিন্ন স্থানে ধানের শীষের পোস্টার ছিঁড়ে ফেলা হয়েছে। পৌরসভার অধিকাংশ স্থানে বর্তমানে ধানের শীষ প্রতীকের কোন পোস্টার নেই। নির্বাচনী প্রচার- প্রচারণায় বাঁধা দেওয়া, মাইক ভাংচুর ও পোস্টার ছিঁড়ে ফেলার অভিযোগে ইতোপূর্বে রিটার্নিং অফিসারের কাছে তিনটি পৃথক অভিযোগ দেওয়া হলেও কোন প্রতিকার পাননি বলে তিনি জানান।তিনি জানান, সবশেষ সোমবার দুপুর ১টার দিকে আওয়ামীলীগের প্রার্থী নুরুন্নবী সরকার ৪০-৫০ জন লোক নিয়ে মিছিল সহকারে তার নির্বাচনী ক্যাম্পে এসে তাকে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াতে বলেন। অস্বীকার করায় তাকে ও তার পরিবারকে কালিহাতী ছাড়া করবেন বলে হুমকি দেন। এ বিষয়ে তিনি থানায় সাধারণ ডায়েরি করবেন বলে উল্লেখ করেন।সংবাদ সম্মেলনে আলী আকবর জব্বারের পক্ষে তার ছেলে রফিকুল ইসলাম রফিক লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন। এ সময় কালিহাতী উপজেলা বিএনপির আহŸায়ক শুকুর মাহমুদ, পৌর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি হুরমুজ আলী, উপজেলা শ্রমিক দলের সাবেক সভাপতি আব্দুস সালাম, উপজেলা জাতীয়তাবাদী যুবদলের সাবেক সভাপতি শামীম আল মামুন মুকুল সহ বিএনপি নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।এ বিষয়ে পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামীলীগের প্রার্থী নুরুন্নবী সরকার জানান, প্রতিদ্ব›দ্বী প্রার্থীর প্রচারণায় তিনি বা তার কোন কর্মী-সমর্থক বাঁধা দিচ্ছেন না। তিনি জানতে পেরেছেন, রোববার রাতে কালিহাতী বাসস্ট্যান্ডে মানুষজনের জটলা দেখে বিএনপি প্রার্থীর ছেলে রফিকুল ইসলাম লাঠি হাতে তাদেরকে ধাওয়া করে। এ সময় তারা বিক্ষুব্ধ হয়ে গাড়ি ভাংচুর করে থাকতে পারে। তবে তারা তার কর্মী বা সমর্থক নয়। নির্বাচনে ভরাডুবি হবে জেনে আলী আবকর জব্বার নানা অভিযোগ তুলছেন- যা মোটেও সত্য নয়।এ বিষয়ে কালিহাতী পৌরসভা নির্বাচনে রিটার্নিং অফিসার ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুমানা তানজিন অন্তরা জানান, নির্বাচনী প্রচারণায় বাঁধা ও গাড়ি ভাংচুরের বিষয়ে বিএনপি প্রার্থীর পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ পেয়েছেন। বিষয়টি তদন্ত করে দেখে তিনি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন।

পরিচিতি Ibrahim Bhuiyan

এটাও চেক করতে পারেন

টাঙ্গাইল ক্যাপসুল মার্কেটের পাশে অবৈধ ভাবে বসানো ফুচকা ও ফাস্টফুডের দোকান উচ্ছেদ

নিজস্ব প্রতিবেদক : টাঙ্গাইল শহরের অবস্থিত ক্যাপসুল মার্কেটের পশ্চিম পাশের গাড়ি পার্কিংয়ের জায়গায় অবৈধ ভাবে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *