টাঙ্গাইলে জোড়া খুনের আসামী গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক: টাঙ্গাইলের ভাল্লুককান্দী গ্রামে সাত মাসের অন্তসত্তা ও তার চার বছরের শিশু মেয়েকে জবাই ও কুপিয়ে হত্যার আসামী রাইজুদ্দিনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। নিহতের স্বামীর বন্ধু রাইজুদ্দিন নগদ টাকার লোভে এই খুন করে এবং খুন করে আট লক্ষ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়।

আজ সোমবার দুপুরে টাঙ্গাইল পুলিশ সুপারের সম্মেলন কক্ষে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এই তথ্য জানান পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায়। তিনি আরো জানান, গ্রেফতারকৃত রাইজুদ্দিন নিহতের স্বামী আল আমীনের ঘনিষ্ট বন্ধু ছিল। আল আমীন বিকাশের ব্যবসা করতো। সেই কারণে তার বাসায় নগদ টাকা রাখতো। আর রাইজুদ্দিন তা টের পেয়ে সেই টাকা নেয়ার জন্যই খুন করে। সে ঘটনার দিন রাত্রি সাড়ে ৮টার দিকে আল আমীনের বাসায় গিয়ে প্রথমে অন্তসত্তা লাকী বেগমকে ছুরিকাঘাত করে। পরে এই ঘটনা তার মেয়ে আলিফা দেখলে তাকেও সে জবাই করে হত্যা করে। পরে সে ঘরের ভিতর থেকে নগদ আট লক্ষ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। তার স্বীকারোক্তি মোতাবেক তার বাড়ির মুরগির খোয়াড় থেকে পুরো টাকা ও হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত ছোঁড়া এবং তার রক্তমাখা লুঙ্গি-শার্ট উদ্ধার করে। গ্রেফতারকৃত রাইজুদ্দিন পুলিশের নিকট হত্যার কথা স্বীকার করেছে এবং তাকে আজ আদালতে পাঠানো হয়েছে। প্রেস ব্রিফিংয়ে জেলার বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য, গত পরশুরাতে টাঙ্গাইলের ভাল্লুককান্দী গ্রামে সাত মাসের অন্তসত্তা লাকী ও তার চার বছরের শিশু মেয়েকে জবাই ও কুপিয়ে হত্যা করা হয়। পরে গতকাল নিহতের পিতা হাসমত আলী বাদী হয়ে টাঙ্গাইল মডেল থানায় অজ্ঞাতদের আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

পরিচিতি Ibrahim Bhuiyan

এটাও চেক করতে পারেন

রাত পোহালেই সারা দেশে ত্যাগের মহিমায় উদযাপিত হবে পবিত্র ঈদুল আজহা

নিজস্ব প্রতিবেদক : ঈদ মোবারক ! ঈদ মোবারক!! রাত পোহালেই সোমবার সারা দেশে ত্যাগের মহিমায় …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *