ভূঞাপুরে বাস্তবায়ন হচ্ছে না ডিজিটাল পদ্ধতি

নিজস্ব প্রতিবেদক: ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয় নিয়ে ২০০৯ সাল থেকে সারাদেশে একযোগে কাজ শুরু করে বাংলাদেশ সরকার । এরই ধারাবাহিকতায় এটুআই, মন্ত্রীপরিষদ বিভাগ বিসিসি, বেসিস ও ডিওআইসিটি এর তত্তাবধায়নে সারাদেশে ৪৯২ টি উপজেলা পরিষদ এবং ৪৫৫৪ টি ইউনিয়ন পরিষদ সরকারি ওয়েব সাইট তৈরি করা হয়।

উচ্চতর তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে ইউনিয়ন পরিষদে এর সকল ধরনের কার্যক্রম ও তথ্য সুসজ্জিত ও সুবিন্যস্ত করণের মাধ্যমে সুশাসনের লক্ষ্যে সরকার এসব প্রকল্প গ্রহণ করে। স্থানীয় জনপ্রতিনিধি , ইউপি সচিব ও রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গের উদাসীনতা ও ব্যর্থতার জন্য ভন্ডুল হতে চলেছে ডিজিটাল করণ প্রক্রিয়া। বর্তমানে সরকার ডিজিটাল বাংলাদেশ থেকে আরো একধাপ এগিয়ে যখন ডিজিটাল স্মার্ট বাংলাদেশ গঠনের লক্ষ্যে কাজ করছে তখন টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলার ৬ টি ইউনিয়ন ও ১ টি পৌরসভার অধিকাংশ কাজ সারছে সনাতন পদ্ধতিতে। ভূঞাপুর উপজেলার তত্তাবধায়নে উপজেলার সরকারি অফিসসমূহে বিভিন্ন দপ্তর রয়েছে । দপ্তরগুলো হলো আইন শৃংঙ্খলা বিষয়ক এর সাথে জড়িত ভূঞাপুর থানা, উপজেলা আনছার ভিডিপি, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স , গ্রাম পুলিশ, প্রকৌশল ও যোগাযোগের সংগে যুক্ত তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তর, উপজেলা প্রকৌশলীর কার্যালয় (এলজিইডি) উপজেলা জন স্বাস্থ্য প্রকৌশল উপসহাকারী প্রকৌাশলী ও শিক্ষা প্রকৌশলী, কৃষি ও খাদ্য বিষয়ক সাথে জড়িত রয়েছে উপজেলা কৃষি অফিস, উপজেলা প্রাণি সম্পদ . উপজেলা মৎস অফিস, উপজেলা পাট উন্নয়ন অফিস, উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্র অফিস, ভূমি বিষয় কাজের সাথে যুক্ত উপজেলা ভূমি অফিস, সাব রেজিস্ট্রারের কার্যালয়, স্বাস্থ্য বিষয়ক উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, মানব সম্পদ উন্নয়ন বিষয়ক কাজের সঙ্গে যুক্ত উপজেলা পল্লী উন্নয়ন কার্যালয়, উপজেলা যুব উন্নয়ন কার্যালয় স্মাট, উপজেলা সমাজ সেবা কার্যালয়, উপজেলা মহিলা বিষয়ক কার্যালয়, উপজেলা সমবায় কার্যালয়, উপজেলা পল্লী দারিদ্র বিমোচন কার্যালয়, উপজেলা একটি বাড়ী একটি খামার প্রকল্প কার্যালয়। সরকারি এসব কার্যালয়ে আদৌ পরিপূর্ণ ডিজিটালাইজেশন করা হয়নি। ভূঞাপুর উপজেলা পরিষদের ওয়েব সাইটে গিয়ে দেখা যায় সরকারি বিভিন্ন দপ্তর , পৌরসভা, ইউনিয়ন পরিষদের ওয়েভস্ইাটের করন চিত্র ও সমন্বয়হীনতা পরিলক্ষিত হয়। কোন তথ্য জানার জন্য ওয়েভস্ইাটের ঢুকলে দেখা যায় তথ্য আপলোড নেই । ৫ জুন ’ ২৩ উপজেলা পরিষদের ওয়েভস্ইাটে আইন শৃঙ্খলা মিটিংয়ের ২০২১ সালের নোটিশগুলো রয়েছে । ২৩ ও ২৪ সালের আপডেট কোন তথ্য নেই । ইউনিয়ন পরিষদের ওয়েভস্ইাটে গুলো এতই নাজুক যে কোন তথ্য আপডেড নাই বললেই চলে । ইউনিয়ন পরিষদের ভিজিডি, বিধবা ভাতা, বষয়স্ক ভাতা, প্রতিন্ধী ভাতা, মাতৃত্বকালীন ভাতা , ভিজিএফসহ বিভিন্ন সুবিধাভোগীর তালিকা থাকার কথা থাকলেও পাওয়া যায়না। ভূঞাপুর উপজেলার অর্জুনা, গাবসারা , ফলদা, গোবিন্দাসী, অলোয়া , নিকরাইল ইউনিয়ন পরিষদের ওয়েবসাইটের এসব চিত্র ফুটে উঠেছে। ফলদা ইউনিয়নের পরিষদের ভিজিডি, বিধাব ভাতা, বষয়স্ক ভাতা, প্রতিন্ধী ভাতা, মাতৃত্বকালীন ভাতা , ভিজিএফসহ বিভিন্ন সুবিধাভোগীর তথ্য না থাকায় এবং অন্যান্য তথ্য গড়মিল থাকায় পরিষদের চেয়াম্যান মোঃ সাইদুল ইসলাম তালুকদার দুদু বলেন, পরিষদের যোগ্য কোন কম্পিউটার অপারেটর নিয়োগ দেয়নি সরকার । আর এসব বিষয় উপজলো সমাজ সেবা অফিস ভালো বলতে পারবে । ভিজিডি, বিধাব ভাতা, বষয়স্ক ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতা, মাতৃত্বকালীন ভাতা , ভিজিএফসহ এসব বিষয় তারাই কাজ করে। গাবসারা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহআলম শাপলা জানান বিষয়টি আমি এখনও অবগত নই। আমার হিসাব রক্ষক তার সাথে কথা বলে বিষয়টি দেখবো। সমাজসেবা কার্যালয়ে সুবিধাভোগীর তালিকায় ত্রাণ ও পুনর্বাসন বিষয়ক , হতদরিদ্র তালিকা, ভিজিডি, ভিজিএফ, মাতৃত্বকালীন ভাতা, মুক্তিযোদ্ধা ভাতা,বিধবা ভাতা, বয়স্ক ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতাসহ বিভিন্ন আপডেট পাওয়া যায়না। পরিষদের ওয়েব সাইটে যে তথ্য দেওয়া আছে সে তথ্যের অনেক প্রায় সময়ই গড়মিল পাওয়া যায়। সরকার যেখানে স্মার্ট ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয় নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে সেখানে ভূঞাপুর উপজেলার বিভিন্ন সরকারি কার্যালয়, বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের দিকে তাকালে দেখা যায় এর কোন ছোঁয়াই লাগেনি এ উপজেলায়। যেখানে সকল দপ্তরে প্রত্যক্ষ সুযোগ-সুবিধার তথ্য জানার সুযোগ থাকার কথা থাকলেও আদৌ কোন অফিস আদালতে সে সুযোগ নগ্ন। আর উপর মহল থেকেও এসব গাফিলতির তদারকি করার মতো কেউ নেই। ভূঞাপুরের বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারী প্রতিষ্ঠান, ইউনিয়ন পরিষদসহ অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের ওয়েব সাইট সচল, তথ্য হালনাগাত, ডিজিটালাইজেশন না থাকার বিষয়টি জানতে চাইলে ভূঞাপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ বেলাল হোসেন বলেন, “প্রায় প্রতিষ্ঠানে ওয়েভ সাইট তৈরি করে নিজ দপ্তরের কাজ পরিচালনা করে আসছে । আর দেখা যায় অনেক প্রতিষ্ঠানে লোকবল সমস্যা রয়েছে। সে কারণে সরাকারি প্রতিষ্ঠানে তথ্য আপডেট করতে কিছুটা সময় লেগে যায়।‘

পরিচিতি Ibrahim Bhuiyan

এটাও চেক করতে পারেন

ঘাটাইলে স্ত্রীর হাত-পা বেঁধে চোখের সামনেই স্বামী ফাঁসি দিয়ে আত্মহত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক : টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে স্ত্রীর হাত-পা বেঁধে চোখের সামনেই আহাদ(২৮) নামে এক যুবক সিলিং …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *