ভূঞাপুরে বালু ঘাটে দুইগ্রুপে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ আহত ১৭

SAMSUNG CAMERA PICTURES


লোকাল নিউজ ডেস্ক ঃ টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে যমুনা নদীতে বালু ঘাটে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সংঘর্ষে দুই গ্রুপের অন্তত ১৭জন আহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার সিরাজকান্দি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
স্থানীয় এলাকাবাসী সুত্রে ঁজানা যায়, দীর্ঘদিন যাবৎ যমুনা নদীতে বালু উত্তোলনকে কেন্দ্র করে নূর আলম মন্ডল (নুহু মেম্বার) ও সবুর সরকার গ্রুপের মধ্যে দ্বন্দ্ব চলছিল। তারই ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার দুপুরে সিরাজকান্দি বাজার সংলগ্ন বালু ঘাটটি উভয় গ্রুপ দখলে নেয়ার চেষ্টা করলে সংঘর্ষ বেঁধে যায়। এতে দুই গ্রুপের অন্তত ১৭জন আহত হয়। আহতদের মধ্যে সবুর সরকার গ্রুপের ১০জনকে ভূঞাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হয়। এর মধ্যে ৭ জনের অবস্থা আশংকা জনক হওয়ায় তাদেরকে টাঙ্গাইল শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। অপর দিকে নুরে আলম গ্রুপের আহতরা বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে ভর্তি হয়েছে বলে জানা গেছে।

SAMSUNG CAMERA PICTURES


ইউপি সদস্য নূর আলম মন্ডল (নুহু মেম্বার) জানান, ইউপি চেয়ারম্যান মতিন সরকারের ভাই মমিন সরকারসহ কয়েকজন মিলে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সিরাজকান্দি বাজারে আমাদের উপর হামলা চালায়। এসময় বাঁধা দিতে গেলে আমাদের ৭জন আহত হয়।
নিকরাইল ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মতিন সরকার জানান, দুই গ্রুপে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সংঘর্ষ হয়। এতে সবুর গ্রুপরে ১০জন আহত হয়েছে। এই বালু ঘাটকে কেন্দ্র করে ইতোপূর্বে গোলাগুলি পর্যন্ত হয়েছে। আমি এবং ও সি (অফিসার ইনচার্জ) মিলে উভয় গ্রুপের সাথে সমযোতা করে দিয়েছিলাম। কিন্তু নূরে আলম গ্রুপের অতর্কিত হামলার কারনে এঘটনা ঘটেছে। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
ভূঞাপুর থানা অফিসার ইনচার্জ রাশিদুল ইসলাম জানান, উপজেলার সিরাজকান্দি বাজারে বালু ঘাটের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুইগ্রুপের মুখোমুখি অবস্থান নেয়। পরে সেটি সংঘর্ষে রূপ নেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

পরিচিতি ইব্রাহীম ভূইয়া

এটাও চেক করতে পারেন

ভূঞাপুরে আলহাজ্ব খন্দকার হায়দার আলী স্মৃতি কল্যাণ সংস্থার উদ্যেগে নগদ অর্থ প্রদান

নিজস্ব প্রতিবেদক : টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে আলহাজ্ব খন্দকার হায়দার আলী স্মৃতি কল্যাণ সংস্থার উদ্যেগে ঘাটান্দী আলহাজ্ব …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *