‘ছেলেধরা’ গুজবে মিনু হত্যা মামলার আসামি ট্রেনে কাটা পড়ে নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক: টাঙ্গাইলের কালিহাতীর সয়া হাটে ‘ছেলেধরা’ গুজবে নিহত দরিদ্র ভ্যান চালক মিনু হত্যা মামলার আসামি আল আমীন ট্রেনে কাটা পড়ে নিহত হয়েছে।

শুক্রবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার হাতিয়া এলাকার অরক্ষিত রেলক্রসিং পার হওয়ার সময় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত আল আমিন উপজেলার পালিমা এলাকার ফজলুল হকের ছেলে ও পালিমা উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণীর ছাত্র।

জানা যায়, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা একতা এক্সপ্রেস ট্রেনটি হাতিয়া এলাকায় পৌঁছালে মোটরসাইকেল যোগে অরক্ষিত রেলক্রসিং পার হচ্ছিলেন আল আমীন। এসময় ট্রেনে কাটা পড়ে ঘটনাস্থলেই নিহত হয় সে। পরে পরিবারের লোকজন খবর পেয়ে মরদেহ বাড়িতে নিয়ে যায়। মিনু হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার হয়ে দীর্ঘদিন কারাগারে থাকার পর কিছুদিন আগে জামিনে মুক্ত হয় আল আমীন।

কালিহাতী থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) নজরুল ইসলাম জানান, আল আমীন ট্রেনে কাটা পড়ে নিহত হয়েছে এমন খবর শুনেছি। সে মিনু হত্যা মামলার এজাহারভূক্ত আসামি ছিল।

উল্লেখ্য গত (২১ জুলাই) রবিবার ভূঞাপুর থেকে মাছ ধরার জাল কেনার উদ্দেশ্য কালিহাতী উপজেলার সয়ার হাটে যান মিনু মিয়া। হাটের কিছু লোকজন তাকে ছেলেধরা সন্দেহ করে এবং এলোপাথারি লাঠিশোটা দিয়ে আঘাত করতে করতে বিবস্ত্র করে ফেলে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে টাঙ্গাইল মেডিকেল কলেজে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঢাকা মেডিকেলে রেফার্ড করা হয়। গত (২৯ জুলাই) সোমবার সকাল সাড়ে ১০ টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মিনু মৃত্যুবরণ করেন।

পরিচিতি Ibrahim Bhuiyan

এটাও চেক করতে পারেন

টাঙ্গাইল ক্যাপসুল মার্কেটের পাশে অবৈধ ভাবে বসানো ফুচকা ও ফাস্টফুডের দোকান উচ্ছেদ

নিজস্ব প্রতিবেদক : টাঙ্গাইল শহরের অবস্থিত ক্যাপসুল মার্কেটের পশ্চিম পাশের গাড়ি পার্কিংয়ের জায়গায় অবৈধ ভাবে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *