ভূঞাপুর কিন্ডারগার্টেনে ভয়াবহ আগুন প্রায় ১০ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি

নিজস্ব প্রতিবেদক: টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর কিন্ডারগার্টেনে ভয়াবহ আগুন লাগার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় কিন্ডারগার্টেনের বই-খাতা, চেয়ার, টেবিল ও বিভিন্ন আসবাবপত্রসহ গুরুত্বপূর্ণ নথিপত্র পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। কিন্তু কিন্ডারগার্টেনের সবকিছু পুড়ে ছাই হলেও তার পাশেই ভূঞাপুর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে আগুনের ছোয়া লাগেনি।

মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) রাত সাড়ে ১০ টায় ভ‚ঞাপুর পৌর শহরের ভূঞাপুর বাজারের কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ সংলগ্ন কিন্ডারগার্টেনে আগুন লাগার ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করে ভূঞাপুর ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট। পরে আধা ঘণ্টারও বেশি সময় নিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণ আনতে সক্ষম হয়।
বুধবার (৩০ নভেম্বর) সকালে সরেজমিনে দেখা গেছে, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটি টিনের ঘর। অফিস কক্ষের বই, চেয়ার, টেবিল, ব্র্যাঞ্চ, আলমিরাসহ আসবাপত্র ও গুরুত্বপূর্ণ নথিপত্র পুড়ে ছাই হয়ে যায়। তার পাশে রয়েছে কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটির সবকিছু পুড়ে গেলেও মসজিদের আগুনের ছোয়া লাগেনি।
ভূঞাপুর বাজার সমবায় উন্নয়ন মার্কেটিং সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক আরিফুল হক আরজু জানান, মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১০ টার দিকে হঠাৎ করে ভূঞাপুর পৌর শহরের ভূঞাপুর কিন্ডারগার্টেনে আগুন লাগে। পরে আগুন মুহুর্তেই চারপাশে ছড়িয়ে পড়ে। আগুন লাগার বিষয়টি ফায়ার সার্ভিসকে জানালে তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণ আনতে সক্ষম হন। এরমধ্যেই কিন্ডারগার্টেন সবকিছু পুড়ে ছাই হয়ে যায়। তবে, কিন্ডারগার্টেন সংলগ্ন মসজিদের কোন ক্ষতি হয়নি।
এ ঘটনায় ভূঞাপুর কিন্ডারগার্টেনের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যাপক শংকর দাস জানান, পরিকল্পিতভাবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আগুন দেওয়া হয়েছে। আগুনে সব শেষ হয়ে গেছে। এতে প্রায় ১০ লাখ টাকার মতো ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এনিয়ে ভূঞাপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়েছে।
এ বিষয়ে ভ‚ঞাপুর ফায়ার সার্ভিসের ভারপ্রাপ্ত স্টেশন কর্মকর্তা মো. আবুল কালাম জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হই। ধারণা করছি বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রাপাত হতে পারে।

পরিচিতি Ibrahim Bhuiyan

এটাও চেক করতে পারেন

ভূঞাপুরে কুকুরের কামড়ে নারী শিশুসহ ১৬ জন আহত

নিজস্ব প্রতিবেদক : টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে পাগলা কুকুরে কামড়ে নারী ও শিশুসহ ১৬ জন আহত হয়েছে। এদের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *