কোরবানির মহিষের তাণ্ডব দুই দিনে দুই উপজেলায় আহত ১৪

নিজস্ব প্রতিবেদক: টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার যুগিহাটি গ্রামে কোরবানির মহিষ জবাইয়ের জন্য প্রস্তুতের সময় লাফিয়ে উঠে দুই দিনে ঘাটাইল ভূঞাপুর উপজেলার ১৪ জনকে আহত করেছে। পরে মহিষটিকে নিয়ন্ত্রণে আনতে এক রাউন্ড গুলিও ছুড়ে ভূঞাপুর থানা পুলিশ। তবে পুলিশের ছোড়া গুলি লাগেনি মহিষের গায়ে।সোমবার (১২ আগস্ট) ঈদের দিন সকাল ১১টার দিকে টাঙ্গাইল জেলার ঘাটাইল উপজেলার যুগিহাটি গ্রামের আরিফুল সরকারের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, ঈদ উপলক্ষে যুগিহাটি গ্রামের আরিফুল সরকারের বাড়িতে একটি মহিষ কয়েকজন মিলে কোরবানি দেওয়ার জন্য কিনেছিলেন। কোরবানি দেওয়ার সময় মহিষটি হঠাৎ লাফিয়ে উঠে। পরে সেখানে থাকা একই পরিবারের পাঁচজনসহ মোট ১৪ জনকে আহত করে মহিষটি। ঘাটাইলের সিমান্তবর্তী ভূঞাপুর উপজেলার কাগমারিপাড়া এলাকায় চলে যায়। পরে ভূঞাপুর থানা পুলিশ মহিষটিকে লক্ষ করে গুলি ছুড়লে সেটি মহিষের গায়ে লাগেনি।ভূঞাপুর থানার উপ-পরিদর্শক টিটু চৌধূরী জানান, ভূঞাপুর উপজেলার ইউএনও ঝোটন চন্দের নির্দেশে ক্ষিপ্ত ঐ মহিষটিকে লক্ষ করে এক রাউন্ড গুলি ছোড়া হয়। এতে মহিষটি সরে গেলে গুলি লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়।


মহিষটিকে দেখতে আশপাশের হাজারও উৎসুক মানুষ চলে আসে। এতে পুনরায় ফায়ার করা সম্ভব হয়নি মানুষের নিরাপত্তার বিষয়টি চিন্তা করে। মহিষটি বর্তমানে ভূঞাপুর উপজেলার নিকলা বিলে অবস্থান করছে।আরিফুল জানান, কোরবানীর জন্য সখিপুর উপজেলার কাইতলা হাট থেকে ১ লক্ষ ৪৭ হাজার টাকা দিয়ে এই মহিষটি ক্রয় করেছিলেন ।

পরিচিতি ইব্রাহীম ভূইয়া

এটাও চেক করতে পারেন

ভূঞাপুরে জমে উঠেনি ঈদে ফুটপাতের দোকান

নিজস্ব প্রতিবেদক : মাহেরমজানে ২৫টি রোযা পার হয়ে গেলেও এবার ঈদে এখন পর্যন্ত জমে উঠেনি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *