জনতা ব্যাংক ভুঞাপুর শাখার কর্মকর্তা অন্যত্র বদ‌লি গ্রাহকের ভোগান্তি

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ :জনতা ব্যাংক ভুঞাপুর শাখার কর্মকর্তা অন্যত্র বদ‌লি গ্রাহকের চেক বই স্লিপও লাপাত্তা । রাষ্ট্রীয়ত্ব জনতা ব্যাংক ভুঞাপুর শাখার কর্মকর্তা‌দের গা‌ফিল‌তিতে হয়রা‌নির স্বীকার হচ্ছে গ্রাহকরা।

ভূক্তভোগি গ্রাহক জানান,আমার জনতা ব্যাং‌কের এক‌টি চেক বই‌য়ের পাতা শেষ হ‌েয় যাওয়ায় সাদা পাতার চেক রি‌কো‌জিশন স্লিপ ব্যাং‌কে দা‌য়িত্বরত কর্মকর্তার কা‌ছে জমা দেই। ‌কিন্তু কর্মকর্তা ব্যস্ত থাকায় এক‌দিন পর নতুন চেক বই নি‌তে ব‌লেন। কিন্তু ক‌য়েক‌দিন পর ব্যাংক‌কে গে‌লে সেই কর্মকর্তা অন্যত্র বদ‌লি হ‌য়ে গে‌ছেন জানান। এতে আমার ওই স্লিপও হা‌রি‌য়ে গে‌ছে ব‌লে সেখানকার বর্তমান কর্মকর্তা বলেন। পরব‌র্তিতে নতুন চেক বই পাওয়ার জন্য থানায় জি‌ডি করতে বল‌লেন তি‌নি। প‌রে থানায় জি‌ডি ক‌রে ক‌পি ব্যাং‌কে নি‌য়ে যাওয়ার পর আমা‌কে ১০০টাকা মু‌ল্য ৩টি স্ট্যাম্প কিন‌তে বলে‌লন। এ‌তে সব মি‌লি‌য়ে এক‌টি নতুন চেক বই নেয়ার জন্য ৫০০টাকা ব্যায় করে‌ গ্রাহকরা । তাহ‌লে যা‌দের জন্য এই ভোগা‌ন্তি ও অর্থ খরচ হল তার দায় কে নি‌বে।

কথা হয় যি‌নি ব্যাং‌কে নতুন যোগদান ক‌রে‌ছেন তি‌নি পু‌র্বের কর্মকর্তার দোষ দি‌লেন চেক রি‌কো‌জিশ‌নের স্লিপ হারা‌নোর জন্য। বল‌লেন ব্যাং‌কে তার কর্মকান্ড স্বাভা‌বিক ছিল না।

আর এই ব্যাং‌কে আ‌রো অ‌নে‌কেই এমন প‌রি‌স্থি‌তি‌তে প‌ড়ে‌ছেন।

পরিচিতি ইব্রাহীম ভূইয়া

এটাও চেক করতে পারেন

ঘাটাইলে জিয়াউর রহমানের ৪৩তম শাহাদাত বার্ষিকী পালন

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিএনপি”র প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের ৪৩তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *