ভূঞাপুরে ৮ভরি সোনার গহনাসহ আটক ৩

ভূঞাপুরে ৮ভরি সোনার গহনাসহ আটক ৩

ভূঞাপুরে ৮ভরি সোনার গহনাসহ আটক ৩

লোকাল নিউজ ডেস্কঃ টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে অভিযান চালিয়ে দুই স্বর্ণকারসহ তিন জনকে আটক করেছে ভূঞাপুর থানা পুলিশ। তাদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় চুরি করা ৮ভরি সোনার গহনা।
জানা যায়, দীর্ঘদিন যাবৎ উপজেলার মাদারিয়া গ্রামের রহিজ উদ্দিনের ছেলে একাধিক চুরি মামলার আসামী নাজমুলের গতিবিধি অনুসরণ করে আসছে ভূঞাপুর থানা পুলিশ। তারই ধারাবাহিকতায় গত ১৭ অক্টোবর বৃহস্পতিবার সন্ধায় নাজমুলকে ভূঞাপুর বাজারের হীরা জুয়েলার্সের কাছে একাধিক বার ঘুরাঘুরি করতে দেখে এস আই মোহাম্মদ মোজাম্মেল হকের সন্দেহ হয়।

ভূঞাপুরে ৮ভরি সোনার গহনাসহ আটক ৩
ভূঞাপুরে ৮ভরি সোনার গহনাসহ আটক ৩

পরে জিজ্ঞাবাদের জন্য তাকে থানায় নিয়ে আসে। সে জানায় প্রায় দেড় মাস আগে সিরাজগঞ্জের কড্ডার মোড় থেকে ভূঞাপুর আসার জন্য ট্রেনে উঠে। সেখানে ঘুমন্ত এক বয়স্ক হিন্দু মহিলার ভ্যানিটি ব্যাগ চুরি করে ভূঞাপুর এনে স্বর্ণ ব্যবসায়ী হীরা জুয়েলার্সের কাছে ৫০হাজার টাকায় বিক্রি করে।
স্বর্ণকার তাকে নগদ ৩০হাজার টাকা দেয়, বাকী ২০ হাজার টাকার জন্য কয়েক বার ভূঞাপুর বাজারের হীরা জুয়েলার্সে আসে। তার স্বীকারোক্তিতে ভূঞাপুর বাজারের স্বর্ণ ব্যবসায়ী হীরা জুয়েলার্সের স্বত্বাধীকারী উপজেলার বামন হাটা গ্রামের যতিন চন্দ্র বনিকের ছেলে অরুন চন্দ্র বনিক ও তার ভাই বরুন চন্দ্র বনিককে আটক করে ভূঞাপুর থানায় নিয়ে আসে। তাদের স্বীকারোক্তিতে অভিযান চালিয়ে অরুনের বামনহাটার গ্রামের বাড়ির আলমিরা থেকে উক্ত স্বর্ণ উদ্ধার করে। উদ্ধারকৃত গহনার মধ্যে ৪টি বালা, ১টি সীতা হার, ১টি হার, ২ জোড়া ঝুমকা কানের দুল।
ভূঞাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ রাশিদুল ইসলাম জানান, নাজমুল আমাদের সন্দেহের তালিকায় ছিল। এর আগেও তাকে চুরির মামলায় গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছিল। জামিনে আসার পর দীর্ঘদিন ধরে তার গতিবিধি লক্ষ্য করে আসছি। উদ্ধারকৃত মালামালের মালিকের সন্ধান করা হচ্ছে। গ্রেফতারকৃতদের রিমান্ডের জন্য আবেদন করা হবে।

পরিচিতি Ibrahim Bhuiyan

এটাও চেক করতে পারেন

ভূঞাপুরে জমে উঠেনি ঈদে ফুটপাতের দোকান

নিজস্ব প্রতিবেদক : মাহেরমজানে ২৫টি রোযা পার হয়ে গেলেও এবার ঈদে এখন পর্যন্ত জমে উঠেনি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *