যমুনা নদী ভাঙ্গনরোধে ফেলা হচ্ছে জিওব্যাগ

লোকাল নিউজ ডেস্ক
টাঙ্গাইল জেলার ভূঞাপুরে যমুনা নদীর ভাঙ্গনরোধে দায়সারা ভাবে জিওব্যাগ ফেলার অভিযোগ উঠছে। জিওব্যাগে বালুর পরিবর্তে মাটি দিয়ে ভর্তি করে ভাঙ্গন কবলিত এলাকায় ফেলা হচ্ছে। এতে ক্ষোভ প্রকাশ করছে ভাঙ্গনকবলিত মানুষ। সরেজমিনে দেখা যাায়, উপজেলার গোবিন্দাসী ইউনিয়নের কষ্টাপাড়া, খানুরবাড়ি ও ভালকুটিয়া গ্রামের ১ কিলোমিটার জুড়ে যমুনা নদীতে তীব্র ভাঙ্গন শুরু হয়েছে গতদুই সপ্তাহ যাবৎ। ভাঙ্গনে ইতোমধ্যে শতাধিক পরিবার ঘরবাড়ি হারিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে। এতে তিনটি প্রাইমারি স্কুল, তিনশত বছরের কালীমন্দির, আধাঁ-পাকা ঘরবাড়িসহ শতাধিক পরিবার ভাঙ্গনের কবলে রয়েছে।

উদ্বোধন করেন ভূঞাপুর উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ আব্দুল হালিম এডভোকেট

এদিকে ভাঙ্গন রোধে টাঙ্গাইলের পানি উন্নয়ন বোর্ড এক কিলোমিটার ভাঙ্গন এলাকার মধ্যে মাত্র ৭৫ মিটার এলাকায় ভাঙ্গনরোধে ৫০ লাখ টাকার প্রকপ্লের অধীন জিওব্যগ ফেলার কাজ উদ্বোধন করেন ভূঞাপুর উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ আব্দুল হালিম এডভোকেট। এসময় উপস্থিত ছিলেন নির্বাহী অফিসার ঝোটন চন্দ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আলিফ নূর মিনি।
টাঙ্গাইলের পানিউন্নয়ন বোর্ডের উপ- সহকারি প্রকৌশলী মফিজুল ইসলাম মজনু জানান, সঠিক জিওব্যাগে বালু ভর্তি করে ভাঙ্গন এলাকায় ফেলা হচ্ছে। কিছু কিছু নৌকায় জিওব্যাগে একটু সমস্যা আছে সেগুলো পরিবর্তন করা হয়েছে। তবে কাজের সিডিউলে বালু দিয়ে জিওব্যাগ ভর্তি করা হবে সেটা লেখা নেই। টাঙ্গাইলের পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. সিরাজুল ইসলাম জানান, জিওব্যাগ বালু দিয়ে ভর্তি করে ভাঙ্গন এলাকায় ফেলানোর জন্য ঠিকাদারকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। যেখানে জিওব্যগ ফেলানের কাজ হচ্ছে সেখানে পানিউন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তা রয়েছেন। তিনি সর্বক্ষন নজর দেখাশোনা করছেন।

পরিচিতি ইব্রাহীম ভূইয়া

এটাও চেক করতে পারেন

ভূঞাপুরে রমজান ও ঈদুল ফিতর উপলক্ষে প্রীতি উপহার বিতরণ

নিজস্ব প্রতিবেদক : টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে রমজান ও ঈদুল ফিতর উপলক্ষে অসহায় দরিদ্র পরিবারের মাঝে প্রীতি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *