একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে টাঙ্গাইল-৩ :(ঘাটাইল) আসনে বড় দুই দলের সম্ভাব্য প্রার্থীদের দৌড়ঝাঁপ

আ: রশিদ তালুকদার : টাঙ্গাইল-৩: (ঘাটাইল) এক উপজেলা নিয়ে গঠিত এ আসনে বড় দুই দলের কোনটিতে প্রার্থীর তেমন ছড়াছড়ি নেই। এ কারণে মনোনয়নের প্রশ্নেও উভয় দলকে কম বেগ পেতে হবে। তবে এই আসনের নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির এ দুই দলের মধ্যে প্রতি জাতীয় সংসদ নির্বাচনেই তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হয়ে থাকে। একাদশ জাতীয় নির্বাচনে তার ব্যতিক্রম ঘটবে না। টাঙ্গাইল-৩: (ঘাটাইল) আসনে ইতোপূর্বে আওয়ামী লীগ মনোনিত প্রার্থী ৪বার ও বিএনপির মনোনিত প্রার্থীর ৪বার এবং জাসদ (সিরাজ) মনোনিত প্রার্থী ও জাতীয় পার্টি (জাপা) প্রার্থী ১ বার করে বিজয়ী হয়েছেন। প্রখ্যাত রাজনীতিক আওয়ামী লীগের বিগত সময়ের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট শামসুর রহমান খান শাহজাহান (প্রয়াত) এ আসন থেকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে ৩ বার নির্বাচিত হয়েছিলেন। তার আপন ভাতিজা বেশি জনপ্রিয় অর্জনকারী আওয়ামী লীগ নেতা আলহাজ্ব আমানুর রহমান খান রানা এ আসনের বর্তমান এম পি। তিনি মুক্তিযোদ্ধা ও টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগের নেতা ফারুক হত্যা মামলার ৩০২ এর ১৬৪ ধারা মোতাবেগ আসামী হিসেবে গাজীপুরের কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে রয়েছেন। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বর্তমান এম পি আমানুর রহমান খান রানা দলের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে অন্যতম একজন। ঘাটাইল আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী ও ভোটারদের মধ্যে ব্যাপক জনপ্রিয়তা রয়েছে। একাদশ জাতীয় নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থীর দলের ভাইস চেয়ারম্যান ওয়ান এলিভেনের সংস্কার প্রন্থি ১৪ জনের একজন সাবেক প্রতিমন্ত্রী টাঙ্গাইল-৩: (ঘাটাইল) আসনের ৪ বারের নির্বাচিত সংসদ সদস্য লুৎফর রহমান খান আজাদ দলটির মনোনয়ন প্রত্যাশী। সাবেক প্রতিমন্ত্রী লুৎফর রহমান আজাদের দলের অনৈতিক কার্জকলাপ, ঘাটাইলে বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের পকেট কমিটি গঠন ও নেতা কর্মীদের অবমূল্যয়ন করায় বর্তমানে কমে গেছে তার জনপ্রিয়তা বলে নেতা কর্মীরা জানান। এ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য আমানুর রহমান খান রানা ছাড়াও আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে রয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভাইস চ্যান্সেলর বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক ডা: কামরুল হসান খান। এছাড়া ঘাটাইল উপজেলা আওয়ামী লীগের এক অংশের আহব্বায়ক শহিদুল ্ইসলাম লেবু, টাঙ্গাইল জজ কোর্টের সাবেক পিপি আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক এ্যাডভোকেট এস, আকবর খান, জাপা থেকে আওয়ামীগে সদ্য যোগদানকারী শিল্পপতি সৈয়দ আবু ইউসুফ আব্দুল্লাহ্ তুহিন, হাইকোর্টের ডেপুটি এর্টোনি জেনারেল মো: শহিদুল ইসলাম, প্রয়াত সাবেক জাতীয় সংসদ সদস্য ডা: মতিউর রহমানের পুত্র তানভীর রহমান দলীয় মনোয়ন প্রত্যাশী বলে জনান। এ আসনে বিএনপির প্রার্থী হিসেবে সাবেক প্রতিমন্ত্রী লুৎফর রহমান খান আজাদ মূল মনোয়ন প্রত্যাশী হলেও বর্তমানে দলটির বেশি ত্যাগী নেতারা তাকে চাচ্ছে না। তার জনপ্রিয়তা কমে যাওয়ায় এ আসনে বিএনপির দুর্দিনের ভূমিকা অর্জনকারী, নেতাকর্মীদের মূল্যায়নকারী টাঙ্গাইল জেলা বিএনপির কোষাধ্যক্ষ আমান বির্ল্ডাস লিঃ এর চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মো: মাইনুল ইসলাম ও এলাকায় কম জনপ্রিয়তা অর্জনকারী কেন্দ্রীয় ছাত্রদল নেতা এস এম এ খলিল তারা দল থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী বলে জানান। এ আসনে জাতীয় পার্টির মনোনয়ন নিয়ে টাঙ্গাইল জজ কোর্টের এডভোকেট মো: সুজাত আলী ও বি এন এফ থেকে প্রার্থী হিসেবে আতোয়ার রহমান খান একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন করতে পারেন বলে জানিয়েছেন। এ আসনে জাতীয় পার্টির ও বিএনএফ এ দুটি দলের তেমন জনপ্রিয়তা নেই। বিএনপির একাধিক সূত্র থেকে জানা গেছে, টাঙ্গাইল-৩: (ঘাটাইল) আসনে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আমান বির্ল্ডাস লিঃ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মো: মাইনুল ইসলামকে দলের মনোনয়ন দিতে পারেন। মাইনুল ইসলাম জানান, দলের হাই কমান্ড থেকে আমি বা দলের যে কোন ব্যাক্তি একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দলীয় মনোনয়ন পেলে তার হয়েই দলের স্বার্থে কাজ করিব। ঘাটাইলের বেশিরভাগ ত্যাগী নেতারা মোঃ মাইনুল ইসলামের মনোনয়নের জন্য কেন্দ্রীয় কমিটি বরাবরে দাবীদার হয়েছেন। নিজ নিজ দলের সকল প্রার্থীরা গণসংযোগের মাধ্যমে বিভিন্ন প্রচার প্রচারণা অগ্রিম চালিয়েছেন।

পরিচিতি ইব্রাহীম ভূইয়া

এটাও চেক করতে পারেন

দলীয় সিদ্ধান্ত না মানায় বিএনপি নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার

নিজস্ব প্রতিবেদক : কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তকে অমান্য করে দ্বিতীয় ধাপে টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলা নির্বাচনে অংশ নেওয়ায় …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *