শাওনের আত্মত্যাগ আন্দোলনকে আরও বেগবান করবে — মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ নারায়ণগঞ্জে বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর শোভাযাত্রায় পুলিশের গুলিতে নিহত যুবদল কর্মী শাওন প্রধানের বাড়িতে গিয়ে পরিবারের সদস্যদের সান্ত্বনা দিয়েছেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

শুক্রবার (২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে নারায়ণগঞ্জের নবীনগর বাজারে শাওনের বাড়িতে যান তিনি।

এসময় উপস্থিত সাংবাদিকদের মির্জা আলমগীর বলেন, এই ফ্যাসিবাদী সরকার বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে গুলি চালিয়ে আমার ভাই শাওনকে হত্যা করেছে। শাওনের এই আত্মত্যাগ এদেশের গণতন্ত্রকে আরও শক্তিশালী করবে। আন্দোলনকে আরও বেগবান করবে। গণতন্ত্রের জন্য প্রাণ দিয়েছেন শাওন।

মির্জা আলমগীর বলেন, জিনিসপত্রের দাম বেড়ে গেছে। এসবের জন্য আমরা গণতান্ত্রিক আন্দোলন করবো। কিন্তু সরকার শান্তিপূর্ণ আন্দোলনের নূন্যতম অধিকারটুকু কেড়ে নিয়েছে। শুধু শাওন নয় ভোলায় নূরে আলম ও আবদুর রহিমকে হত্যা করেছে। গতকাল মানিকগঞ্জ, সিরাজগঞ্জ, নেত্রকোনাসহ বিভিন্ন জায়গায় বিএনপির শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে হামলা চালিয়েছে।

পুলিশের উদ্দেশে বিএনপি মহাসচিব বলেন, আপনারা আমাদের শত্রু নন। মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার রক্ষা করা আপনাদেরও দায়িত্ব। আওয়ামী লীগের অন্যায় হুকুম আপনারা মানবেন না। নিরীহ মানুষের ওপর গুলি করবেন না। এই হত্যার জন্য একদিন আপনাদের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে।

মির্জা আলমগীর বলেন, এসপি সাহেব বলেছেন শাওন নাকি যুবদলের কর্মী নয়। সে যুবদলের কর্মী না হলেও একজন সাধারণ মানুষকে গুলি করে মারার অধিকার আপনাদের কে দিয়েছে।

তিনি বলেন, আমরা সন্ত্রাসে বিশ্বাস করি না। ঐক্যবদ্ধভাবে শান্তিপূর্ণ আন্দোলন অব্যাহত রাখবো। এসময় দলের নেতাদের ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানান বিএনপি মহাসচিব। পরে শাওনের পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে তাদের সান্ত্বনা দেন বিএনপি মহাসচিব।

এসময় বিএনপি কয়েকজন কেন্দ্রীয় নেতা ও যুবদলের কেন্দ্রীয় সভাপতি সুলতান সালাউদ্দিন টুকুসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

পরিচিতি Ibrahim Bhuiyan

এটাও চেক করতে পারেন

ভূঞাপুরে মাদরাসা শিক্ষকের পুঁতে রাখা লাশ উদ্ধার, আটক – ৩

নিজস্ব প্রতিবেদক: টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরের সার পলশিয়া গ্রাম থেকে আব্দুল হক (৫৫) নামের এক মাদরাসা শিক্ষকের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *